বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপ সৃষ্টি হওয়ায়খুলনা জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরি সভা অনুষ্ঠিত।

শুক্রবার ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৭ কার্তিক ১৪২৭

বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপ সৃষ্টির প্রেক্ষিতে আজ (শুক্রবার) সকালে খুলনা জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে তাঁর সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত এই সভায় জানানো হয়, গভীর নিম্নচাপের কারণে সম্ভাব্য দুর্যোগ মোকাবেলায় সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। চার লাখ ১৬ হাজার মানুষের ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন ১১৪টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। পর্যাপ্ত অর্থ ও খাবার মজুদ আছে।

ইতোমধ্যে খুলনার বিভিন্ন উপজেলায় দুই হাজার প্যাকেট শুকনা খাবার, দুই লাখ টাকা এবং পর্যাপ্ত চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। সভায় আরও জানানো হয়, সরকারি এবং বেসরকারি পর্যায়ে প্রায় চার হাজার পাঁচশত ভলান্টিয়ার এই সম্ভাব্য দুর্যোগে মোকাবেলায় প্রস্তুত আছে।

যারা ইতোমধ্যে উপকূলীয় জনগণকে সচেতন করতে মাইকিংসহ নানামুখী প্রচার চালাচ্ছে। স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয় জেলা, উপজেলা এবং ইউনিয়ন পর্যায়ে মোঠ ১১৬টি জরুরি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে।

সাপের কামড় এবং পানিতে ডুবে যেন শিশুরা মারা না যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখার জন্য স্বেচ্ছাসেবকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, খুলনা জেলা দুর্যোগ প্রবণ এলাকা হওয়ায় এ এলাকার জনগণ দুর্যোগ মোকাবেলায় দক্ষ ও অভিজ্ঞ।

তারপরও সম্ভাব্য সকল ক্ষয়ক্ষতি এড়ানোর জন্য সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের সকল প্রতিষ্ঠান, কর্মী এবং স্বেচ্ছাসেবকদের সচেতন থাকতে হবে।

সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সাবিক) জিয়াউর রহমান, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সাইদুল ইসলাম, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আজিজুল হক জোয়ার্দারসহ রেড ক্রিসেন্ট, আশ্রয়ণ ফাউন্ডেশন, নবযাত্রা, সিপিপি, ফায়ার সার্ভিস ও রূপান্তরের কর্মকর্তাসহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।